বিশেষ প্রতিবেদক

দীর্ঘ ৩০ বছরের পরে পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার কলারদোয়ানিয়া গোমস্তা বাড়ির সামনে নদীর উপর ১৫০ ফুট বাশ ও কাঠের সাঁকো পরির্দশন করেন (ইউএনও)।

২৮ জুলাই বুধবার উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের গোমস্তা বাড়ির সামনে নদীর উপর ১৫০ ফুট বাশ ও কাঠের সাঁকো পরির্দশন করেন
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।
মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, মিসেস ওবায়দুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ইস্রাফিল হোসেন, কলারদোয়ানিয়া চেয়ারম্যান হাসনাত ডালিম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল বাহাদুর প্রমুখ।
উল্লেখ্য, উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের ৩ টি ওয়ার্ডের জনসাধারণের দীর্ঘ ৩০ বছরের দাবী ছিলো একটি ব্রীজের । দেশে করোনা কালিন সময় থাকায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাসনাত ডালিম উক্ত বিষয়টি মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে বিষয়টি অবহিত করেন। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের বরাদ্দকৃত ত্রাণ ও দূর্যোগ মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে, নয়াভিরাম বাশ ও কাঠের ১৫০ ফুট লম্বা সাঁকোটি নির্মান কাজ শেষ হয়। ২৫ জুলাই রবিবার বিকালে, দেখার জন্য জনতার ঢল দেখাগেছে। ইউপি চেয়ারম্যান হাসনাত ডালিম বলেন, বিগত ১৫ বছরে যে উন্নয়নহয়নি। মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে, এই ইউনিয়নের উন্নয়নের চিত্র পাল্টে গেছে। সুদু এই ইউনিয়নের উন্নয়নের চিত্র পাল্টায়নি পিরোজপুর ১ আসনের উন্নয়নের চিত্র পাল্টে গেছে। মন্ত্রী মহোদয় ও সরকারের কাছে দাবী এখানে একটি আয়রন ব্রীজ অতিব জরুরী।