নিজস্ব প্রতিবেদক

পিরোজপুরের নাজিরপুরের গাওখালী স্কুল এন্ড কলেজে ল্যাব সহকারী সহ অফিস সহায়ক (চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী) পদে নিয়োগ বানিজ্যের প্রতিবাদে ওই প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবক সহ ও স্থানীয়রা মানববন্ধন করেছেন। গতকাল শনিবার দুপুরে ওই প্রতিষ্ঠানের সামনের নাজিরপুর-বৈঠাকাটা সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন ওই স্কুল এন্ড কলেজের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য মাস্টার নিমাই চাঁদ তহশিলদার, দাতা সদস্য শাহ আলম, মো. নাইমুল ইসলাম প্রমুখ। এ সময় ওই প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির দুই সদস্য অভিযোগ করে বলেন, প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সুখরঞ্জন বেপারী ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ জাফর বাহাদুর কমিটির অন্য সদস্যদের না জানিয়ে গোপনে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময় গত শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) ২ জন কর্মচারী নিয়োগ দেন। এর আগেও সম্প্রতি একই ভাবে ৩ জন কর্মচারী নিয়োগ দিয়েছেন। যা নিয়োগের প্রায় ২ মাস পর আমরা জানতে পারি। এমনকি এভাবে কয়টি পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে তাও আমরা জানি না। এ সময় দেউলবাড়ি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. নাইমুল ইসলাম অভিযোগ করে জানান, এর আগের নিয়োগে তিনি প্রার্থী থাকলেও তার কাছ থেকে অগ্রিম উৎকোচ নিয়েছে। সাক্ষাৎকারে (ইন্টারভিউ) ডাকা হয় নি। পরে সেই টাকা ফেরত দেন ।


এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ফোনে জানান, নিয়োগের রেজিলেশন ও রেজিস্টার করার পর। ম্যানেজিং কমিটির অভিবাবক সদস্য মাস্টার নিমাই চাঁদ তহশিলদার, তার বোনের ছেলেকে নিয়োগের আবেদন করার জন্য বলেন। বিধিমোতাবেক সম্বব নয়। তার এই অভিযোগ এবং নাঈমের অভিযোগ মিথ্যা। (ইন্টারভিউ) সময় তিনি উপস্থিত ছিলেন না। তবে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সুখরঞ্জন বেপারী নিয়োগ বানিজ্যের অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, সম্পূর্ন সরকারী বিধি মেনে নিয়োগ কার্যের একটি ধাপ সম্পন্ন করা হয়েছে।